Logo
TV
ব্রেকিং নিউজঃ
Sunday 21st July 2024
আন্তর্জাতিক
অভিযোগ-পাল্টা অভিযোগ, প্রতিশ্রুতিতে শেষ হলো বাইডেন-ট্রাম্প বিতর্ক
 SUNNEWSBD.COM
 Publish: 28-Jun-2024

অভিযোগ-পাল্টা অভিযোগ, প্রতিশ্রুতিতে শেষ হলো বাইডেন-ট্রাম্প বিতর্ক



সাননিউজবিডি ডটকম ডেস্ক:॥আন্তর্জাতিক॥ অভিযোগ, পাল্টা অভিযোগ আর নানা নির্বাচনী প্রতিশ্রুতির মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ও তার প্রতিদ্বন্দ্বী ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রথম নির্বাচনী বিতর্ক। স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার রাতে আমেরিকার জর্জিয়া অঙ্গরাজ্যের আটলান্টায় বর্তমান ও সাবেক প্রেসিডেন্টের মধ্যে এ বিতর্ক অনুষ্ঠিত হয়।

মার্কিন সম্প্রচারমাধ্যম সিএনএন এই বিতর্কের আয়োজন করেছিল। ৯০ মিনিটের এই বিতর্ক সভায় কোনো দর্শকের উপস্থিতি ছিল না। বিতর্কে ট্রাম্প বক্তব্য দিয়েছেন ৪০ মিনিট ১২ সেকেন্ড। আর বাইডেন বলেছেন ৩৫ মিনিট ৪১ সেকেন্ড।

এতে ফিলিস্তিন ইস্যু, আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহার, গর্ভপাতের অধিকার, চাকরি, মুদ্রাস্ফীতি, অভিবাসন সংকটের মতো গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে দুই প্রার্থী বিতর্ক করেন। এ বিতর্কের শুরুতে করমর্দন করতে দেখা যায়নি বাইডেন ও ট্রাম্পকে।

গাজা যুদ্ধ প্রসঙ্গে বাইডেন বলেন, হামাসই যুদ্ধ শেষ করতে চায় না। এ সময় হামাসকে নির্মূল করার বিষয়ে জোর দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। অন্যদিকে ট্রাম্প বলেন, ইসরায়েলের এ যুদ্ধ শেষ করা উচিত। বাইডেন একজন ফিলিস্তিনি হয়ে উঠেছেন।

গর্ভপাতের বিষয়ে রিপাবলিকান প্রার্থী ট্রাম্প জানান, তিনি নির্বাচিত হলে গর্ভপাতের চিকিৎসা বন্ধ করবেন না। এর আগে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেন, গর্ভপাতরোধে ডোনাল্ড ট্রাম্পের ভূমিকা একটি ভয়াবহ ব্যাপার।

অভিবাসন সংকট নিয়ে বাইডেন বলেন, এখন ৪০ শতাংশ মানুষ অবৈধভাবে সীমান্ত পাড়ি দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করছে। এটা ট্রাম্পের সময়ের চেয়ে ভালো।

এর জবাবে ট্রাম্প সীমান্ত নিয়ে বাইডেনের নীতির সমালোচনা করেন। তার দাবি, যুক্তরাষ্ট্রে কয়েদি, মানসিক রোগী, সন্ত্রাসীরা অবৈধভাবে প্রবেশ করছে।

বিতর্কে ওঠে আসে আফগানিস্তান প্রসঙ্গও। ট্রাম্প বলেন, আমি আফগানিস্তান থেকে বেরিয়ে যাচ্ছিলাম। কিন্তু আমরা মর্যাদার সাথে, শক্তির সঙ্গে বের হয়ে যাচ্ছিলাম।

বাইডেন মধ্যপ্রাচ্য এবং আফগানিস্তানে তার পররাষ্ট্রনীতির পক্ষে বক্তব্য রাখেন।

ইউক্রেনের বিষয়ে বাইডেন বলেন, ট্রাম্প রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমিরপুতিনকে যা ইচ্ছা করতে বলেছেন। পুতিন ভেবেছিলেন ৫ দিনের মধ্যে কিয়েভকে নিয়ে যাবেন।

এ সময় ট্রাম্প বলেন, আমি কখনোই তা বলিনি। ইউক্রেন ইস্যুতে ট্রাম্প বলেন, ইউরোপিয়ান দেশগুলো যুক্তরাষ্ট্রের চেয়ে কম খরচ করেছেন।

২০২১ সালে ক্যাপিটল হিলে হামলার বিষয়ে বাইডেন বলেন, ট্রাম্পের উসকানিতেই সেদিন এ হামলা চালানো হয়। ওই দিনের হামলাকারীদের জেল হওয়া উচিত।

ট্রাম্প বলেছেন যে, বাইডেন এ ঘটনায় অনেক নির্দোষ মানুষের জীবন ধ্বংস করেছেন।

মুদ্রাস্ফীতির বিষয়ে ট্রাম্প বলেন, বাইডেন মুদ্রাস্ফীতি ঘটাচ্ছেন। আমি তাকে মুদ্রাস্ফীতি ছাড়াই দেশ দিয়েছি।

এর জবাবে বাইডেন বলেন, মুদ্রাস্ফীতি না থাকার কারণ হলো অর্থনীতি গতিশীল ছিল না। আমি চাকরির সুযোগ তৈরি করে দিয়েছি।

বিতর্কের শেষ দিকে বাইডেন জানান, তিনি আমেরিকানদের জন্য কর কমাতে চান। সেই সঙ্গে মুদ্রাস্ফীতির লাগামও টানতে চান।এ সময় ইনসুলিনের দাম কমানো ও সুলভ মূল্যে চাইল্ডকেয়ার সংক্রান্ত সেবা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

বিতর্কের একেবারে শেষে ট্রাম্প মন্তব্য করেন, আমরা নরকে বাস করছি। এরপর ‘আমরা আমেরিকাকে আবারও মহান করে তুলব’ বলে নিজের বক্তব্য শেষ করেন সাবেক প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।





সাননিউজবিডি ডটকম




এখানে আরও খবর রয়েছে


এই মুহুর্তের শীর্ষ খবর



তারিখ অনুযায়ী খবর দেখুনঃ



সর্বাধিক পঠিত